জিমেইল কি? জিমেইল পরিচিতি ও প্রয়োজনীয়তা এবং ব্যবহার

Gmail account,What is Gmail,What is Gmail , Gmail Use, Gmail, Gmail, Gmail , জিমেইল, জিমেইল অ্যাকাউন্ট, জিমেইল মানে কি, জিমেইল এর ব্যবহার, জিমেইলের প্রয়োজনীয়তা, Alim Telecom, Alim Telecom, Alim Telecom ctg, আলিম টেলিকম সিটিজি, আলিম টেলিকম সিটিজি,
জিমেইল কি? জিমেইল পরিচিতি ও প্রয়োজনীয়তা এবং ব্যবহার

জিমেইল কি জিমেইল পরিচিতি – What is Gmail? Gmail introduction.

আপনারা এই পোস্ট থেকে জানতে পারবেন জিমেইল কি জিমেইল পরিচিতি, প্রয়োজনীয়তা এবং ব্যবহার।

Gmail কি?

 Gmail (ইংরেজি শব্দ) Gmail হল গুগল দ্বারা প্রদত্ত একটি বিনামূল্যের ইমেইল বা ওয়েব মেইলে পরিষেবা।

এটি একটি জনপ্রিয় ওয়েব ব্রাউজার বা  মোবাইল অ্যাপ।এটি খুবই প্রয়োজনীয় একটি ওয়েব সেবা।

একজন ব্যবহারকারী জিমেইল বা গুগল আইডি তৈরি করে তার বিভিন্ন প্রয়োজনীয় কাজে ব্যবহার করতে পারে।

 এটির মালিক:  Google 

এটি প্রথম চালু হয়: ১ এপ্রিল ২০০৪ 

বর্তমানে এটি 100+  ভাষায় সমর্থন করে। 

জিমেইল ইউআরএল: www.gmail.com 

এই ওয়েবসাইটে লগইন করে সহজে একজন ব্যবহারকারী তার জিমেইল অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে পারে। স্মার্ট ফোন দিয়ে সহজে জিমেইল খোলা যায়।

বর্তমানে এটির সক্রিয় ব্যবহারকারী:2 বিলিয়ন প্লাস। 

এটির স্টোরিজ ১৫ জিবি ।

এখানে gmail সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। এখন আপনারা জিমেইল সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন

একজন ব্যবহারকারী সাধারণত একটি ওয়েব ব্রাউজার বা অফিশিয়াল অ্যাপ এ জিমেইল এক্সেস করেন। 

  প্রয়োজনীয়তা কি? 

জিমেইল খুবই জনপ্রিয় এবং প্রয়োজনীয় একটি নাম। এটি বিভিন্ন প্রয়োজনে ব্যবহার করা হয়।

ওয়েব ব্রাউজার বা অ্যাপ লগইন করার জন্য জিমেইল প্রয়োজন হয়। জিমেইল ছাড়া কোন কোন ব্রাউজার বা অ্যাপ এক্সেস দেই না।

সফটওয়্যার আপডেট করার জন্য gmail প্রয়োজন হয়। স্মার্টফোন ব্যবহারের জন্য gmail দরকার।

ফোন set up করার জন্য  জিমেইল প্রয়োজন হয়। বিভিন্ন প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট জিমেইল একাউন্টের মাধ্যমে সংরক্ষণ করলে নিরাপদ থাকে।

এতে হারিয়ে যাওয়া বা নষ্ট হয়ে যাওয়া কোন ভয় নেই। সুতরাং অনলাইনের বিভিন্ন প্রয়োজনে স্মার্টফোন ব্যবহারের জন্য gmail প্রয়োজন। 

জিমেইল কি কি কাজে ব্যবহার করা হয় 

স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের দৈনন্দিন প্রয়োজনে জিমেইল। ব্যক্তিগত ডাটা ইমেজ ভিডিও ডকুমেন্ট বিভিন্ন তথ্য নিরাপদ রাখতে জিমেইল ব্যবহার করা হয়।

অনেক ধরনের কাজে জিমেইল ব্যবহার করা হয়।

তারমধ্যে কিছু প্রয়োজনীয় জিমেইল ব্যবহার সম্পর্কে আপনাদের জানানোর চেষ্টা করব। 

জিমেইল অ্যাকাউন্ট তৈরি করার পর 

 

  1. জিমেইল ওয়েব ব্রাউজার বা অ্যাপ লগইন করে ব্যবসায়িক আলাপ, প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট, ভিডিও, ফটো সহ আরো বিভিন্ন তথ্য সহজেই আদান প্রদান করা যায়।
  2. জিমেইলের মাধ্যমে ফোন কন্টাক্ট সেভ করা যায় নিরাপদে।
  3. সফটওয়্যার আপডেট বা সফটওয়্যার ডাউনলোডের জন্য প্লে স্টোরে জিমেইল দিয়ে লগইন করতে হয়।
  4. ওয়েবসাইট বা অ্যাপ লগইন করার জন্য জিমেইল প্রয়োজন হয়।
  5. গুগল ড্রাইভ জিমেইল দিয়ে লগইন করা হয়।
  6. গুগল সিট, গুগল ফটো, ম্যাপস নিউজ, মিট, চ্যাট, গুগল ক্যালেন্ডার, গুগল ট্রান্সলেট, ফটো এসব স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের দৈনন্দিন প্রয়োজনীয় ব্রাউজার বা অ্যাপ লগইন করার জন্য Gmail প্রয়োজন হয়।
  7. গুগল Docs ,Slides,Books,blogger,Hangouts,keep,jamboards,classroom,Google Earth, Collection, Google ads, Google products, Google one, travel, forms সহ আরো অনেক ব্রাউজার বা অ্যাপ এসব অ্যাক্সেস পাওয়ার জন্য জিমেইল অ্যাকাউন্ট বা গুগল একাউন্ট প্রয়োজন হয়। এসব google এরই প্রোডাক্ট।
  8. এছাড়া ইউটিউব লগইন এবং চ্যানেল খোলার জন্য জিমেইল প্রয়োজন হয়।
  9. গুগল ম্যাপে লোকেশন এড করার জন্য জিমেইল প্রয়োজন হয়।

10. WordPress website তৈরি করার জন্য জিমেইল প্রয়োজন হয়।

11. জনপ্রিয় ওয়েব ব্রাউজার ফেসবুক একাউন্ট তৈরি ও recovery জন্য gmail প্রয়োজন। 

12. টুইটার অ্যাকাউন্ট তৈরিতে জিমেইল লাগে।

13. ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট তৈরিতে জিমেইল লাগে।

13. LinkedIn প্রোফাইল তৈরিতে জিমেইল ব্যবহার হয়।

14. ওয়েবসাইটের জন্য ডোমেন হোস্টিং কিনতে gmail ব্যবহার হয়।

15. জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং সাইট ফাইবার, ফ্রিল্যান্সার, অফ ওয়ার্ক প্রোফাইলে লগইন করার জন্য জিমেইল লাগে।

 16. বিভিন্ন অনলাইন বিজ্ঞাপন সাইটের বিজ্ঞাপন দেখে আয় করার জন্য জিমেইল লাগে। 

17. অনলাইনে ক্রয় বিক্রয় করার জন্য জিমেইল লাগে। 

এছাড়া আরো অনেক প্রয়োজনে জিমেইল লাগে। যার যার ব্যক্তিগত কাজে মানুষ জিমেইল তৈরি করে এবং এটি ব্যবহার করে।

অনলাইন জগতে প্রতিদিন জিমেইল ব্যবহার ও তৈরীর সংখ্যা বাড়ছে।

মানুষের নিত্য প্রয়োজনীয় তথ্য ছবি ভিডিও ডকুমেন্ট কন্টাক নাম্বার সহ আরো প্রয়োজনীয় বিষয় জিমেইলের মাধ্যমে সংরক্ষণ করছে। google কারো ব্যক্তিগত তথ্য শেয়ার করে না।

তাই জিমেইলের মাধ্যমে মানুষের ব্যক্তিগত তথ্য সম্পূর্ণভাবে নিরাপদ। 

আপনার  আরো প্রয়োজনীয় বিষয় সম্পর্কে জানতে নিচের লিংক গুলোতে ক্লিক করুন।

এখানে আপনার আরো প্রয়োজনীয় বিষয় সম্পর্কে জানতে পারবেন।

এই ওয়েবসাইটের পোস্টগুলো ভালো করে দেখতে আপনার প্রয়োজনীয় বিষয় শিখতে ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।

আশা করছি আপনারা এই পোস্ট থেকে কিছু জানতে পেরেছেন ও কিছু শিখতে পেরেছেন।

আমার লেখা যদি ভালো লাগে তাহলে বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন। ধন্যবাদ সবাইকে

About Author

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *